February 21, 2024

সৈয়দ মুজতবা আলী-দেবব্রত ঘোষ

সৈয়দ মুজতবা আলী বাংলা সাহিত্যের সর্বকালের অন্যতম শ্রেষ্ঠ কথাকার, কথাশিল্পী। প্রচলিত গল্প-উপন্যাসের চেনা ছক ভেঙে তিনি বাংলা কথাসাহিত্যে নিজস্ব স্টাইল প্রবর্তন করে গেছেন। মুজতবা আলীর লেখালেখির ভিতর ‘উপন্যাস’ অভিধা দেওয়া হয়ে থাকে এই চারটি গ্রন্থকে— ‘অবিশ্বাস্য’ (প্রকাশ ১৩৬১), ‘শবনম’ (প্রকাশ ১৩৬৭), ‘শহর-ইয়ার’ (প্রকাশ ১৩৭৬), ‘তুলনাহীনা’ (প্রকাশ ১৩৮১)। শেষ বইটি ১৯৭৪ এর ১১ ফেব্রুয়ারি লেখকের জীবনাবসানের মাত্র দু’মাস পরে প্রকাশিত হয়েছিল।

ঘটনাবহুল, বাঙালি পাঠকের সম্পূর্ণ অপরিচিত পরিবেশ ও চরিত্র অবলম্বনে এবং অত্যন্ত স্পর্শকাতর জটিল যৌন মনস্তাত্ত্বিক অপরাধচেতনার বিবরণে আকর্ষণীয় হয়ে উঠেছে তাঁর প্রথম উপন্যাস ‘অবিশ্বাস্য’-এর কাহিনি।

‘শবনম’ যেন মুজতবা আলী-র ‘শেষের কবিতা’। দীর্ঘ এই উপন্যাসের বিস্তৃত পটভূমি,ঘটনাবৈচিত্র্য, রাজনীতি, ইতিহাস এসব বাদ দিয়েও বলা যায়, কবিতার ঝরনা স্ফটিকজলের স্বচ্ছধারা হয়ে এই উপন্যাসকে সিক্ত করে রেখেছে।

‘শহর-ইয়ার’ আত্মজীবনীর আদলে গড়া উপন্যাস। এখানেও লতায় পাতায় রবীন্দ্র রৌদ্রছায়ার ঝিকিমিকি। আছে শান্তিনিকেতন, আছেন স্বয়ং গুরুদেবও।

‘তুলনাহীনা’ মুজতবা আলীর একটি জনপ্রিয় উপন্যাস। বাংলাদেশের একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধ আন্দোলন এই উপন্যাসের পটভূমি জুড়ে আছে। তবে রাজনৈতিক আখ্যান নয়, প্রেমই এ উপন্যাসের মূল উপজীব্য।

এছাড়াও ‘টুনিমেম’ ও ‘একপুরুষ’ নামের দুটি উপন্যাসিকা এই সংকলনে অন্তর্ভূক্ত হয়েছে।

উপন্যাস সমগ্র

সৈয়দ মুজতবা আলী

প্রচ্ছদ- দেবব্রত ঘোষ

মিত্র ও ঘোষ পাবলিশার্স

Habiba Tasnim

আসসালামুআলাইকুম ওয়ারাহমাতুল্লাহ, আমি এই ওয়েবসাইটের নতুন সদস্য। ওয়েবসাইটটি আমার কাছে বেশ ভালো লেগেছে তাই চিন্তা করেছি এখন থেকেই ওয়েবসাইটটি প্রতিনিয়ত ব্যবহার করব ইনশাআল্লাহ। ব্যক্তিগত ব্যাপারে বলতে গেলে এতোটুকুই বলতে পারি আমি আপাতত একজন আলিম দ্বিতীয় শ্রেণীর ছাত্রী। বরিশাল ভোলা

View all posts by Habiba Tasnim →

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *