March 2, 2024

পজিটিভ থিংকিং বই পাঠের অনুভূতি কথন : মুহাম্মাদ শাহজালাল

পজিটিভ থিংকিং বই পাঠের অনুভূতি কথন
লেখক:হাসান শুয়াইব
প্রকাশনী:দ্বীন পাবলিকেশন
কলমে: মুহাম্মাদ শাহজালাল

গল্প জীবন থেকে নেওয়া কিন্তু জীবন গল্পের মতো হয় না, আবার মাঝে মাঝে জীবন গল্পের চেয়েও বেশি গল্পময়। শিল্পী তার শব্দের বুননে এঁকে যায় গল্পের রং, আর জীবনের বেলায় সাক্ষাৎ শিল্পীই যেন হয়ে ওঠেন গল্পের রং। জীবনের একটা পরম বাস্তবতা হলো জীবন ভিন্ন ভিন্ন রুপে ভেসে উঠে। জীবনের পরতে পরতে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা গল্পগুলোকে লেখক ইসলামি ফুরামে তুলে এনেছেন এই বইটিতে। বইয়ের গল্পগুলো যেন জীবনের কথা বলে। সমাজের সেসব ছন্দহীন চরিত্রকে গল্পের আলোকে জীবনের ছন্দে ফিরিয়ে এনেছেন।

জীবনের হতাশা আর দুঃখ এই সব কিছুর পেছনে রয়েছে মানসিক কিছু নেগেটিভ থিংকিং। নেগেটিভ থিংকিং এমন এক বিষাক্ত জিনিষ যা মানুষের মনের সকল শান্তি নিমিষেই দূর করে দেয়ার ক্ষমতা রাখে। নেগেটিভ মানসিকতার মানুষ কখনো জীবনকে সহজ ভাবে নিতে পারে না। জীবন কে সেরা ভাবে উপভোগ করতে সবসময় ভালো চিন্তা বা পজিটিভ থিংকিং করতে হবে। পজিটিভ থিংকিং শুরু করলে তখন জীবনে ধীরে ধীরে ইতিবাচক পরিবর্তন আসবে; ইনশাআল্লাহ।

কিন্ত জীবনের চলার পথে মাঝে মাঝে এমন কিছু মোড় আসে যেখানে পজিটিভ থিংকিং ধরে রাখা খুবই কষ্টকর বিষয় হয়ে দাঁড়ায়। এর জন্য এমন কিছু পদক্ষেপ নিন যাতে পজিটিভ থিংকিং আপনার চরিত্রের একটি অংশ হয়ে যায় এতে করে জীবনের চলার পথ অনেক বেশী সহজ হয়ে যাবে। আর জীবনের সেসব মোড় গুলোতে কিভাবে ঠিক রাখতে হবে তা ইসলামের আলোকে সুন্দর করে সাজিয়েছে লেখক।

মূল কথা হলো পজিটিভ থিংকিং বইটি জীবনের অনেক বড় ভূমিকা রাখবে বিশেষ করে বর্তমান আমাদের নৈতিবাচক চিন্তাভাবনার সমাজে অনেক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে। গল্পের মাধ্যমে জীবনের অনেক গুরুত্বপূর্ণ বিষয় তুলে এনেছেন বইয়ের পাতায়। বলা যার গল্পে গল্পে একগুচ্ছ নসিহত।

নিজের জীবনকে বইয়ের পাতায় দেখতে পাবেন। জীবনের অনেক অজানা কিছু প্রশ্নের উত্তরও পেয়ে যাবে। বইটি একবার পড়া শুরু করলে শেষ না করে উঠতে মন চাইবে না। প্রতিটি গল্পই ভাবনার দুয়ারে নতুন করে নাড়া দিয়ে যাবে। দিবে কিছু চিন্তার খোরাক। কীবনকে ইতিবাচক দৃষ্টিভঙ্গি জাগিয়ে তুলতে সহায়তা করবে। আর বইটিতে কুরআন, হাদিস, নবিজি (সঃ) জীবনের গল্প, এবং ইসলামের ইতিহাসের অনেক সুন্দর সুন্দর জ্ঞান বা তথ্য-উপাত্ত পাওয়া যাবে।

গল্প: শত্রু তবু বন্ধু তুমি—
ক্ষমা করতে পারা অনেক বড় একটা গুন। যা সবাই করতে পারে না। কেউ মনে কষ্ট দিলে আমরা মনের মধ্যে যেই রাগ পুষতে থাকি। ‘শত্রু তবু বন্ধু তুমি’ শিরোনামের গল্পটিতে মা ও ছেলের কথোপকথনের মাধ্যমে মিথ্যা অপবাদ আরোপ ও ক্ষমার মাহাত্ম্য চমৎকার ভাবে সাজানো হয়েছে ক্ষমার গুরুত্ব। এবং পরিবারের সবার সাথে কেমন বন্ধুত্ব সুলভ সম্পর্ক ও পরিজনদের প্রতি কতটা সদয় হতে হবে তা তা তুলে ধরা হয়েছে। গল্পের দৃষ্টিকাড়া বিষয়টি হলো ক্ষমা। জীবন যুদ্ধে চলতে গিয়ে অনেক সময় অনেক ধরনের ভুলভ্রান্তির মধ্য দিয়ে যেতে হয়। তবে সেই ভুল ভ্রান্তি বুঝতে পেরে অপরজনকে ক্ষমা করে দেওয়াটাই মহৎ বিষয়।

গল্প: জীবন যাবে আজীবন তোমার জীবন জানতে—
আল্লাহ তায়া’লা বলেন, “তোমাদের জন্য রাসুলুল্লাহ ﷺ জীবনেই রয়েছে তোমাদের জন্য সর্বোত্তম আদর্শ।” মানবতার মুক্তিদূত রাসুলুল্লাহ ﷺ হলেন সব মানুষের জন্য আল্লাহ তায়া’লার প্রেরিত সর্বশ্রেষ্ঠ মানব। যিনি বিশ্বমানবতার জন্য সর্বোত্তম আদর্শের প্রতীক। কিন্তু আমাদের সেই নবিজী ﷺ জীবনী পড়ে দেখা হয় না। “জীবন যাবে আজীবন তোমার জীবন জানতে” নবিজী ﷺ জীবনী পড়ার গুরুত্ব তুলে ধরেছেন। তিন বন্ধুর সিরাত অধ্যয়নের গল্প দিয়ে সাজিয়েছে ‘জীবন যাবে আজীবন তোমার জীবন জানতে’। গল্পটি পড়ে এমন কিছু উপলব্ধি হবে যা হয়তে অন্যকোনো বই পড়ার সময় হয়তো মাথায় আসে নি। গল্পে আরেকটা বিষয় ফুটে উঠেছে তা হলো বন্ধুদের সাথে আড্ডা, বতমানের বন্ধুদের আড্ডায় অশীল আলাপ আলোচনা বেশি হয়। লেখক এখানে ফুটিয়ে তুলেছেন যে আড্ডা গুলো কেমন হবে।

গল্প: ধ্রুবতারাগন—
এই গল্পে আমার যে বিষয়টি দৃষ্টি কেড়েছে তাহলে নবীজির প্রতি সাহাবীদের ভালবাসা ও দৃঢ় বিশ্বাস। আবু বকর রাদিয়াল্লাহু তা’আলা আনহু এবং সাআদ বিন মুআজ রাদিয়াল্লাহু তা’আলা আনহু নবীজীর প্রতি যে বিশ্বাস স্থাপন করেছেন তার মানব জীবনে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। বিশেষ করে সাআদ বিন মুআজ রাদিয়াল্লাহু তা’আলা আনহু রসূল সাল্লাল্লাহু সালামের প্রতি বিশ্বাস এবং ভরসা স্থাপন করেছেন তা আমাদের মানব জীবনের গুরুত্বপূর্ণ একটি শিক্ষণ।

গল্প: বোঝা না বোঝার হিসাব—
পৃথিবীতে সবচেয়ে মধুর সম্পকের মধ্যে স্বামী স্ত্রীর সম্পক অন্যতম এই গল্প স্বামী স্ত্রীর প্রতি একে অপরের দায়িত্ব কর্তব্য এবং আল্লাহর দ্বীন প্রচারের বিষয়টি ফুটে উঠেছে। কিভাবে আল্লাহর দ্বীন প্রচার করা যায় তার একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছে এ গল্পে।

বইটা পড়তে গিয়ে আমি হারিয়ে গিয়েছে বইয়ের পাতায় পাতায়, প্রতিটি শব্দে শব্দে। বইয়ের পাতায় নিজের জীবনকে কাছ থেকে দেখতে পেলাম। বইয়ের প্রতিটি গল্প কুরআন আয়াত এবং হাদিস দিয়ে প্রানোবন্ধ করে তুলেছে।

Md Rafsan

বইইনফো ডট কম একটি বই সম্পর্কিত লেখালেখির উন্মুক্ত কমিউনিটি ওয়েবসাইট। শুধু মাত্র একটি ফ্রি একাউন্ট খোলার মাধ্যমে আপনিও লিখতে পারেন যে কোনো বই সম্পর্কে, প্রশ্ন করতে পারেন যে কোনো বিষয়ের উপর।

View all posts by Md Rafsan →

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *