March 2, 2024

মির্জাপুরে মহাতঙ্ক : দিবাকর দাস | Mirzapure Mohatonko

নাম: মির্জাপুরে মহাতঙ্ক
লেখক: দিবাকর দাস
জনরা: কিশোর অ্যাডভেঞ্চার
প্রকাশনী: মুক্তদেশ প্রকাশন
ই-বুক মূল্য: ৩০/- (বইঘর)

বিশ্ব-মনের সোনার স্বপনে কিশোর তনু বেড়ায় ওই
তন্দ্রা ঘোরে অন্ধ আঁখি নিখিল খোঁজে কই সে কই।
বাজিয়ে বাঁশি চড়ায় উট,
নিরুদ্দেশে দেয় সে ছুট,
‘হেরার’ গুহায় লুকিয়ে ভাবে – এ আমি তো আমি নই!

— কাজী নজরুল ইসলাম

হঠাৎই জায়গা বদলের ফলে সহজে মানিয়ে নেওয়া সহজ হয় না। তাও যদি হয় শহুরে আপডেটেড এক কিশোর তাহলে তো আরও মুশকিল। এমনটাই হয়েছে তমালের সাথে। বাবার বদলির জন্য মির্জাপুরে এসে মনমরা হয়ে গেছে। না আছে ফাস্টফুড, না আছে টিভি। কারেন্টের সাথে পরিচয়ই তো হয়েছে মির্জাপুরবাসীর কিছুদিন আগে। গ্রাম জুড়ে হৈ-হুল্লোড় পড়ে যায়, ছোটনের ছোট বোন পানিতে পড়ে গেছে! তমালের জন্য বেঁচে যায় একটি প্রাণ; সাথে শুরু হয় তমালের সাথে ছোটন, মিলি, সুজনদের বন্ধুত্বের পথচলা। শহুরে বাবু বনে যায় গ্রাম্য দুরন্ত কিশোর! সারাদিন স্কুল, ছোটাছুটি, ঘুড়ি উড়ানো, খেলাধুলা, দীঘিতে ঝাঁপাঝাপি…

নির্জন শান্ত মির্জাপুরে রূপ বদলে ঢুকে পড়ে তিন আগন্তুক। তারপর? শুরু হয় মৃত্যুর তান্ডব! প্রাণবন্ত কিশোরদলের ঘাড়ে পড়ে প্রাণ রক্ষার দায়িত্ব। পারবে কি তমালরা ভয়ানক মৃত্যুখেলা রুখতে?

একটুখানি মিথ, একটুখানি অ্যাডভেঞ্চার, একটুখানি মিস্ট্রি, একটুখানি থ্রিল মিলেমিশে ❝মির্জাপুরে মহাতঙ্ক❞। অবশ্য কিশোর উপযোগী। গ্রিক দেবতার সাথে বিরোধ মানুষ্যজাতির সাথে নবীদের অল্প কিছু ঘটনা। কাহিনীর প্রথম অর্ধাংশ তমালের পরিবর্তন আর গ্রামীণ প্রেক্ষাপটে কৈশোরের দূরন্তপনার দৃশ্য ফুটে উঠেছে। প্রথমে ধীর গতির হলেও শেষের দিকে ঘটনাগুলো দ্রুত ঘটতে থাকে। থ্রিল বা মিস্ট্রি খুব একটা টুইস্টেড না। এত সহজেই সমাধান হয়ে গেছে দেখে কিছুটা হতাশ হয়েছি। তবে কিশোর উপন্যাস হিসেবে মন্দ নয়।

কিছু জায়গায় খটকা আছে। তমালের কথা শুনে কাউকে না জানিয়ে অচেনা একজনের লাশ কবর দিয়ে দিলো! সদ্য কৈশোরে পা দেওয়া একদল কিশোর-কিশোরীর জন্য বেমানান ঠেকে। জীবনবৃক্ষ সামান্য মাটির ছোঁয়া পেলে জীবনেও মরবে না। তাহলে গাছটা আগেই কেন মাটিতে লাগানো হলো না? শেষ অংশ আরও কিছুটা ডিটেইলসে হলে ভালো হতো।

পড়ার সময় বারবার জাফর ইকবাল স্যারের কিশোর উপন্যাসের কথা মনে পড়ছিল। কৈশোরের দুঃসাহসিকতা, বন্ডিং, অ্যাডভেঞ্চার, সমস্যা যত বড়োই হোক না কেন সমাধান তো চাই-ই চাই। নস্টালজিক করে তোলে।

টুকিটাকি কিছু বানান ভুল আর নামে গন্ডগোল আছে। একইসাথে ছোটোবড়ো ফ্রন্ট, চোখে লাগে এটা। আশা করি বইঘর বিষয়গুলো আপডেট ভার্সনে সংশোধন করবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *