February 21, 2024

ডাবল স্ট্যান্ডার্ড ৩ : ডা. শামসুল আরেফীন

বই : ডাবল স্ট্যান্ডার্ড ৩
লেখক : ডা. শামসুল আরেফীন
প্রকাশনী : দি পাথফাইন্ডার পাবলিকেশন্স
বিষয় : ইসলামি আদর্শ ও মতবাদ
সম্পাদক : মাওলানা আব্দুর রহমান
পৃষ্ঠা : 184, কভার : পেপার ব্যাক
আইএসবিএন : 978984962371, ভাষা : বাংলা

শারঈ সম্পাদকের ভূমিকা


সকল প্রশংসা আল্লাহর জন্য। দুরুদ ও সালাম বর্ষিত হোক নবিজি হযরত মুহাম্মদ মুস্তফা সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম, তার পরিবারবর্গ ও তার সাহাবীদের ওপর।

হালের মুসলিম উম্মাহকে শুধু অস্ত্র দ্বারা আঘাত করেই ক্ষ্যান্ত হচ্ছে না তার শত্রুরা। বরং আমাদের সবচেয়ে দামী সম্পদ ইসলামি বিশ্বাস ও মূল্যবোধকে ভুলভাবে উপস্থাপন করে আমাদের সন্তানদেরকে সংশয়বাদী ও দীনবিরোধী বানিয়ে তুলছে। তারা খুব ভালো করেই জানে, এই উম্মাহর প্রাণভোমরা তাদের ঈমান ও আমল। ঈমান-আমল ছিনিয়ে নেয়া ছাড়া এই উম্মাহকে পরাজিত করা অসম্ভব। আল্লাহ বলেছেন কুরআনে তাদের এই চক্রান্ত মাকড়সার জালের চেয়ে শক্তিশালী নয়। ইসলামের অথেনটিক দলিল এবং উম্মাহর বড় বড় আলেমদের ব্যাখ্যাবলী সামনে নিলেই তাসের ঘরের মতো ভেঙে পড়ে তাদের বানানো সন্দেহ-সংশয়ের প্রাসাদ। দেশে দেশে আলিমগণ এ বিষয়ে বহু আগে থেকেই কাজ করে চলেছেন।


আমাদের তরুণ প্রজন্মকে সঠিক ইসলামী শিক্ষা থেকে দূরে রাখার জন্য যা যা করার দরকার, তার কোনটাই বাদ দেওয়া হচ্ছে না। শত্রুদের অসৎ নিয়ত ও কূটকৌশল উন্মোচন করে যদি আমরা মুসলিম উম্মাহের সামনে সঠিক রূপটি তুলে না ধরি, তাহলে পরবর্তী প্রজন্ম ঈমানী অস্থিরতায় ভুগতে পারে তাদের মিথ্যার সামনে। অবশ্য আল্লাহ তার দীনকে নিজেই হেফাজত করবেন বলে আমাদের জানিয়েছেন।


কাজেই এই দীন যে মিটিয়ে দেওয়া যাবে না সে ব্যাপারে আমারা নিশ্চিত ও দৃঢ় একীন রাখি। কিন্তু যারা ভুলভাল ব্যাখ্যা করে, কাটপিস দলিল লুকোছাপা করে এনে মুসলিমদের গোমরাহ করছে, তাদের ব্যাপারে পূর্ববর্তী সালাফগণ চুপ করে বসে থাকেনি। আমরাও থাকব না। শত্রুদের বিরুদ্ধে তারা বিভিন্নভাবে লড়েছেন। তার মধ্যে বাহাস ও লেখনিও অন্তর্ভুক্ত। বাংলা ভাষাতেও আমরা ঈমান-আমলের সুরক্ষা ও বাতিল মতাদর্শের অপনোদনের এক জাগরণ লক্ষ্য করছি।


সেই ধারাবাহিকতায় প্রিয় ভাই ডা শামসুল আরেফীনের ডাবল স্ট্যান্ডার্ড সিরিজের বইগুলো অন্যতম। ইসলামের উপর নাস্তিক ও সংশয়বাদীদের প্রশ্নের উত্তরগুলো তিনি সিরিজ আকারে কুরআন-সুন্নাহ ও উম্মাতের গ্রহণযোগ্য-বরণীয় আলেমদের ব্যাখ্যার আলোকে গল্পের ছলে সাজিয়েছেন। প্রথম ও দ্বিতীয় খণ্ড ইতিপূর্বে বের হয়েছে। এবার আল্লাহর রহমত ও সাহায্যে তৃতীয় খণ্ডও পাঠকের হাতে। চলমান জ্ঞানগত যুদ্ধের ডামাডোলে নতুন আরেকটি মোক্ষম অস্ত্র পাওয়াটা নিঃসন্দেহে আমাদের জন্য আনন্দের।


সম্পাদনার জন্য আমাকে শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত পড়তে হয়েছে। পাতায় পাতায় আমি কখনও হয়েছি পুলকিত, আবার কখনও অবাক, কখনও মুগ্ধ। এত সুন্দর ও সহজ করে এত জটিল জটিল বিষয়গুলো তিনি তুলে ধরেছেন সেজন্য সত্যিই তিনি প্রশংসা পাওয়ার যোগ্য। একেকটা লেখা সাজাতে তাঁকে কী পরিমাণ পড়তে হয়েছে, বইটি পড়লেই পাঠক তা অনুভব করতে পারবেন।


আমি আমার পক্ষ থেকে আল্লাহর রহমতে যথাসাধ্য চেষ্টা করেছি বইটিতে সঠিক তথ্যগুলো যুক্ত করতে এবং ভুলগুলো দূর করতে। এরপরও ভুল থেকে যাওয়া বিস্ময়ের কিছু নয়; বরং মানুষ হিসেবে একান্ত স্বাভাবিক। আমাদের আর্জি : যেকোন ভুল পেলে ক্ষমাসুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন। আমাদেরকে জানালে পরবর্তীতে আমরা শুধরে নেব।


আয় আল্লাহ! আমাদের টুটা-ফাটা মেহনতকে আপনি কবুল করে নিন এবং আমাদের ভুল-ত্রুটি ক্ষমা করে দিন। বইটি দ্বারা উম্মাহকে উপকৃত করুন এবং আখিরাতে আমাদের নাজাতের উসিলা বানিয়ে দিন। আমিন! মাওলানা মুহাম্মাদ আব্দুর রহমান আলিম | সম্পাদক | শিক্ষক


২০১৭ সালে ডাবল স্ট্যান্ডার্ড-১ এর পাঠকপ্রিয়তার পর নারীবিষয়ক অভিযোগগুলো নিয়ে ২০২০ সালে আসে ডাবল স্ট্যান্ডার্ড-২। এবার আরও কিছু অভিযোগ নিয়ে একই ধাঁচে এলো ডাবল স্ট্যান্ডার্ড-৩। বইয়ে আলোচিত বিষয়গুলোর কয়েকটি সরাসরি ঈমানের সাথে সম্পর্কিত। যেমন কুরআন-হাদিস কীভাবে সংকলন হয়েছে, সেটা জানাটা ঈমানের অংশ। ঠিক কীসের উপর আমরা ঈমান এনেছি, সেটা কতটুকু বিশুদ্ধ, এ ব্যাপারে সংশয় একেবারে ঈমানে গিয়ে কোপ দেয়।


যে জান্নাতের স্বপ্ন আমরা দেখি, তার ব্যাপারে সংশয় থাকাটা ঈমানের রোগ। জান্নাতের জীবন্ত চিত্র, তাজা অনুভূতি থাকাটা ঈমানের স্বাদ এনে দেয়। এরকম কিছু মৌলিক বিষয় নিয়ে আলাপ করেছি এবার। গল্পের ছাঁচে ফেলে যুক্তিতর্কগুলোকে সুস্বাদু করবার সেই চিরচেনা ভঙ্গিতে।গল্পের নায়ক-নায়িকারা বিভিন্ন ক্যাম্পাসের, যাতে এদের মাঝে পাঠক নিজেকে খুঁজে পায়। আমার লেখালেখির আরেকটা উদ্দেশ্য ইসলামের কর্মী তৈরি করা। এই চরিত্রগুলোর মাধ্যমে আমি তরুণদেরকে স্মরণ করিয়ে দিতে চাই তাদের দায়িত্ব।


গল্পের নায়ক-নায়িকাদের মতো তারাও যেন নিজ নাগালে আপন সামর্থ্য মোতাবেক দাওয়াতের কাজকে জীবনের মিশন হিসেবে নেয়, এটাই আমার স্বপ্ন। গল্পের মতো করেই কখনও যুক্তি, কখনও আবেগ, কখনও মমতা দিয়ে তারা যেন উদাসীন-সংশয়ী এতিম উম্মাতের উপর নবিওয়ালা জিম্মাদারি আদায় করে, এটাই ওসীয়ত। বইটি পাঠের শুরুর ‘আপনি’ আর শেষের ‘আপনি’র মাঝে সামান্যতম ফারাকও যদি টের পান, সেটাই বইয়ের সার্থকতা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *