March 2, 2024

চলে যায় বসন্তের দিন – হুমায়ূন আহমেদ

 

বইয়ের নাম : চলে যায় বসন্তের দিন
লেখক : হুমায়ূন আহমেদ

চলে যায় বসন্তের দিন উপন্যাসটি হিমু চরিত্রের ১১ম উপন্যাস। বইটি ২০০২ সালের বইমেলায় প্রকাশিত হয়..

উপন‍্যাসের প্রথমেই হুমায়ূন আহমেদ বলেছেন :
চলে যায় বসন্তের দিন।”
কী অদ্ভূত কথা! বসন্তের দিন কেন চলে যাবে? কোনো কিছুই তো চলে যায় না। এক বসন্ত যায়, আরেক বসন্ত আসে। স্বপ্ন চলে যায়, আবারো ফিরে আসে..

আসলে যেইসব উপন‍্যাসের শুরুর দিকেই এত সুন্দর উক্তি দিয়ে শুরু হয় সেগুলো সবারই ভালো লাগার কথা.. আর সেই উপন‍্যাস যদি হয় হিমু চরিত্রের তাহলে তো কথাই নেই..

আমরা হয়তো অনেকে জানি হিমু মূলত একজন বেকার যুবক; যার আচরণে বেখেয়ালী, জীবনযাপনে ছন্নছাড়া ও বৈষয়িক ব্যাপারে সম্পূর্ণ উদাসীন ভাব প্রকাশ পায়। চাকরির সুযোগ থাকলেও সে চাকরি কখনো করে না বলেই সে বেকার।

যেহেতু এই উপন‍্যাসটি হিমু চরিত্রের তাই এখানে অবশ্যই বিভ্রান্ত, কৌতুক, রহস্য থাকবেই.. আর বিশেষ কিছু কথা থাকবে যেগুলো আপনার মনকে নাড়া দিবে.. আপনি হারিয়ে যাবেন হিমুর জগতে..

এই উপন‍্যাসেও হিমু অনেক কর্মকাণ্ড করেছে.. উপন‍্যাসের শেষের দিকে হিমুকে মিথ্যা মামলায় জড়িয়ে দেওয়া হয়.. হিমু তবুও এক বিন্দু প্রতিবাদ করেনি.. আরও অনেক ঘটনা আছে যেগুলো জানতে হলে আপনাকে এই বইটি পড়তে হবে..তাই আর দেরি না করে
এখনি পড়ে ফেলুন বইটি এবং হারিয়ে যান হিমুর জগতে..

পাঠপ্রতিক্রিয়া : হিমু চরিত্রের বই ভালো লাগে না এমন মানুষের সংখ‍্যা খুবই কম.. এই উপন‍্যাসে প্রথম দিক যেমন ছিল একটু হাসির, মাঝখানে আবার বিভ্রান্ত, রহস্য, শেষের দিক ছিল তেমনি মায়ায় আচ্ছন্ন.. সবকিছু মিলিয়ে দারুন একটি উপন‍্যাস ছিল.. উপন‍্যাসের কিছু উক্তি দিয়েই আজকের মতো শেষ করছি…

বৃক্ষ নরম কিন্তু স্পষ্ট স্বরে বলল, হিমু তুমিও ভালো থেকো। ভালো থাকুক। তোমার বন্ধুরা। ভালো থাকুক সমগ্ৰ মানব জাতি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *