March 1, 2024

বই : থ্রি : টেন এ এম লেখক : নিক পিরোগ

  • বই : থ্রি : টেন এ এম
  • লেখক : নিক পিরোগ
  • অনুবাদ : সালমান হক

থ্রি এ এম সিরিজের মূল চরিত্র হেনরি বিনস এর মা স্যালি বিনস ৩০ বছর আগে পরিবার থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে যান। বহু বছর পর হেনরি কিছু তথ্যের উপর ভিত্তি করে তৎপর হয় তার মাকে খুঁজে বের করতে।
সিরিজের দ্বিতীয় বই থ্রি:টেন এ এম এ ৫ বছর চেষ্টার পর হেনরি তার মায়ের সম্পর্কে কিছু তথ্য পায় যা তার জন্য মোটেও সুখকর ছিল না। সে জানতে পারে তার মাকে খুঁজে পাওয়া গিয়েছে, তবে জীবিত নয়। বরং তার গুলিবিদ্ধ লাশ পাওয়া গিয়েছে পটোম্যাক নদীতে এবং দেশের সবচেয়ে বড় নিরাপত্তা রক্ষা সংস্থার তথ্য অনুযায়ী সে একজন রেড অ্যালার্ট পাওয়া সন্ত্রাসী।


কিন্তু হেনরি বাবার কাছ থেকে সে জানতে পারে তার মায়ের অন্য পরিচয়, যা তিনি ৩০ বছর ধরে গোপন রেখেছিলেন। স্যালি বিনস ছিলেন সিআইএ এর একজন গোয়েন্দা!!


ছোটবেলা থেকে এক সাধারণ কর্মজীবী মহিলাকে নিজের মা হিসেবে জেনে এসে হঠাৎ যখন হেনরির সামনে মায়ের সম্পূর্ণ বিপরীত দুইটি পরিচয় উন্মোচিত হয়, তখন সে বিভ্রান্ত হয়ে যায়। আসল সত্য খুঁজে বের করা তার জন্য গুরুত্বপূর্ণ হয়ে ওঠে।


কিন্তু হেনরি বিনস রোগে আক্রান্ত একজন যার কিনা পুরো দিনের কাজ সম্পন্ন করার জন্য মাত্র এক ঘন্টা সময় বরাদ্দ তার জন্য এত বড় রহস্য উদঘাটন কিছুটা কষ্টসাধ্য হয়ে পড়ে। দিনের পর দিন সেই এক ঘন্টা সে কাজে লাগায় বিভিন্ন সূত্র যোগাড় করতে।


স্যালি বিনস কি সত্যিই স্পাই ছিলেন নাকি সন্ত্রাসী?
নদীতে পাওয়া লাশ কি আসলেই স্যালি বিনসের?
যদি হয়েই থাকে তাহলে কে বা কারা কি কারণে খুন করে তাকে?
বাবা ও বান্ধবী ইনগ্রিডের সহযোগিতায় শেষ পর্যন্ত সব প্রশ্নের উত্তর পেয়ে যায় হেনরি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *