March 2, 2024

তেই অর্পিতা – সমুদ্র দাশ

ভালোবাসাকে কখনো আমরা একপ্রস্থ ডায়মন্ড রিং কিংবা ক্ষয়িষ্ণু গোলাপের সৌরভের মধ্যে সীমাবদ্ধ রাখিনি….
গতানুগতিক সৌরভও আমাদের তেমন একটা আকৃষ্ট করতে পারেনি ।
আকৃষ্ট ছিলাম আমরা দুজনায়।
তাছাড়া জেমস্ এর মহাকাশের তারা নয়তো আর্টসেল এর বদ্ধ দেয়ালের রংধুয়ে যাওয়া মানুষের সাথে না জড়িয়ে, একে অপরের হাতকে প্রশস্ত করেছি শুন্য হতে অসীমের উদ্দেশ্যে।
শিরোনামহীনের অবেলাতেই আমাদের দেখা হয়েছিলো।
সেখান থেকেই শুরু করে আজ অবধি এগিয়ে চলেছি৷
এরই মাঝেই কতো যে অর্থহীন-নিকৃষ্ট বাঁধা হাতে হাত রেখে পার করে এসেছি তার হিসেব রাখার সময়ও আমাদের হয়ে উঠে নি।
সে যাই হোক, ভালো আছি আমরা।
আকাশের ঠিকানায় চিঠি লিখেও ঠিকই তোমার কাছে পৌঁছে দিয়েছি।
আকাশই যেন আমাদের বার্তাবাহক।
সবকিছুর পরও দিনশেষে একই গন্তব্যে আমরা মিলিত হবোই।
সেই সংক্ষিপ্ত ‘অ’ দেখেই যেন আমি থমকে দাঁড়াই।
পড়তে গিয়েও সেই ‘অ’ তে এসেই আঁটকে পড়ি।
জন্মজন্মান্তর থেকে যেন ভালোবেসে এসেছি
ছুঁয়ে দেখি বারংবার অক্ষরটিকে।
ওই এক অক্ষরেই যেন আমরা একসাথে জড়িয়ে।
ভালোবাসি,

কেননা, আমার জানা মতে ‘অ’ তেই অর্পিতা ।

সমুদ্র দাশ
ভলেন্টিয়ার কন্টেন্ট রাইটার
রাইটার্স ক্লাব বিডি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *