February 27, 2024

ছায়ানগর

ছায়ানগর ১০১।‌ ছায়ানগরে কি ছায়া থাকে? নাকি নগরের ইটকাঠের ঘরবাড়ি এবং মানুষজনের কোন ছায়া নেই? আরেকটি আশঙ্কা আছে অবশ্য। মানুষের জায়গা কি ছায়ারা দখল করে নিয়েছে? সাদা এবং কালোর মাঝে যেমন একটা গ্রে এরিয়া থাকতে পারে, ঠিক তেমনি ছায়া এবং মানুষের মাঝে থাকতে পারে এক অস্বস্তিকর এবং অন্যভূবনের অনুভূতি। যে অনুভূতি থেকেই হয়তো এই ছায়ানগর ১০১ এর অভিযাত্রা।

ছায়ানগর ১০১ মূলত একটি ‘টু-শট’ ব‌ই। টু-শট বলছি একারণে যে এই গ্রন্থে কমিক্স যেমন আছে ঠিক তেমনি আছে ইলাস্ট্র্যাটেড গল্প। পাগলা কমিক্স রিডারদের মাঝে অনেক সময় গল্প পড়ার ঝোঁক কম থাকে। আবার অনেক বোদ্ধা পাঠক পর্যন্ত কমিক্স এবং গ্রাফিক নভেলকে মনে করেন ছোটদের বিষয়। তাই এই ধরণের আয়োজন তাৎপর্যপূর্ণ বলে মনে করি।

কমিক্স এবং ইলাস্ট্র্যাটেড গল্প মিলিয়ে ১৯ টি আখ্যান আছে এই ব‌ইয়ে। মাতব্বর কমিক্স এন্ড পাবলিকেশনের একটি উচ্চাকাঙ্ক্ষী প্রকল্প বলা যায় এটিকে। অল্প সময়ে এই উল্লেখিত প্রকাশনা অনেক ঝুঁকিপূর্ণ প্রজেক্ট নিয়ে কাজ করে ফেলেছে। যা প্রশংসনীয় আমার মতে।

যদ্দুর সম্ভব স্পয়লারমুক্ত রিভিউ দিতে চাই, তাই হয়তো কিছু বিষয় আলোচনায় আসবে না। স্পয়লারমুক্ত রিভিউ লিখতে গেলে বেশ কিছু ক্রিটিক‌ও করা কঠিন হয়ে পড়ে।

একটি কমিক্স এবং এরপর একটি চিত্রন সম্বলিত গল্প এভাবে এগিয়েছে সংকলনটি। অল্প কথায় উনিশটি গল্পের যথাসাধ্য স্পয়লারমুক্ত আলোচনা করছি। হয়তো রিভিউটি দীর্ঘ হয়ে যেতে পারে। অনাগ্রহীরা হয়তো ইতিমধ্যে পড়া থামিয়ে বিদায় হয়েছেন এই পোস্ট থেকে। আপনি আগ্রহী হয়ে এতদূর চলে আসলে আশা করি পুরোটা পড়বেন‌।

১) রাত্রিপথে – লেখক : তানজীম রহমান, শিল্পী : অনারিয়া আলিম্মন ( কমিক্স )

হরর থ্রিলারে তানজীম দারুন একজন লেখক। এই গল্প ছায়ানগরের প্রথম হ‌ওয়াটা সার্থক হয়েছে। শহরভর্তি ছায়াহীন এবং তোঁতাপাখির মাঝে এক নারীর বিপন্নতা এবং বিষন্নতা থেকে উদ্ধারের উপায় হয়তো কোন ছায়ার‌ই। প্লট চমৎকার, অঙ্কন মোটামোটি ভালোই। আরেকটু ডার্ক এন্ড গ্রিটি হতে পারতো হয়তো অঙ্কন এই গল্পের।

২) মিথরাস – লেখক : কিশোর পাশা ইমন, শিল্পী : অনারিয়া আলিম্মন ( ইলাস্ট্রেটেড গল্প )

ক্রিশ্চিনা এবং তাঁর বয়ফ্রেন্ডের রহস্যময় আচার-আচরণের ব্যবচ্ছেদ করতে গিয়ে শাহেদ, নীরব এবং প্রিয়াংকা জড়িয়ে পড়ে হাজার হাজার বছর ধরে চলে আসা প্যাগানিজমের সাথে সেমেটিক রিলিজনের সংমিশ্রণের লুকোনো গল্পে। কেপি আমার খুব প্রিয় একজন লেখক। তবে লেখাটি সম্ভবত তাঁর অল্প বয়সের। চিত্রন ভালো হয়েছে‌।

৩) ডুয়াল – লেখক : প্রান্ত ঘোষ দস্তিদার, শিল্পী : সাদী ইমদাদ ( কমিক্স )

এক ভয়ানক খুনেকে মারতে গিয়ে জড়িয়ে পড়তে হয় দু’জন দক্ষ পিস্তলচালককে এক ডুয়ালে। গল্প বুঝতে পেরেছিলাম কোন দিকে যাচ্ছে তবে এরপর‌ও ভালো লেগেছে। সাদী ইমদাদের কমিক্স আর্টের ফ্যান আমি। দারুন কাজ করেছেন। অনেকদিন পর ওয়েস্টার্ন কমিক্স পড়লাম‌।

৪) অন্ধজনা – লেখক : হাসান মাহবুব, চিত্রন : তাহমীদুল ইসলাম আলিফ ( ইলাস্ট্র্যাটেড গল্প )

হাসান মাহবুব মানে ডার্ক এবং মন খারাপ করিয়ে দেয়ার গল্প। দুর্দান্ত এই লেখক এক অন্ধ পিতার প্রতিশোধস্পৃহার অন্যরকম গল্প বলেছেন। চিত্রন দারুন হয়েছে।

৫) রান ! টেরোরিস্ট রান !!! – লেখক : আহমেদ হাসান সানি, শিল্পী : চন্দ্রিকা নূরানী ইরাবতী ( কমিক্স )

যেন এক কষ্টকর বাস্তবতার কাব্যগল্প এটি। গল্প মনটা ছুয়ে গেছে। অঙ্কন ক্ষুদ্র পরিসরে বেশ ভালোই।

৬) সেভেন – লেখক : ফাহাদ আল আবদুল্লাহ, চিত্রন : সমীরণ বর্মণ, সাদী ইমদাদ ( ইলাস্ট্রেটেড গল্প )

খুব সম্ভবত এই সংকলনের সেরা গল্প মনে হয়েছে এটিকে। MR-7 কে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ধরে আনা হয়েছে‌। কিন্তু প্রশ্ন হল কে কার হাতে বন্দি? গল্পের ডায়লগ, একশনের দুর্দান্ত বর্ননা এবং বাংলাদেশের কিংবদন্তি এজেন্টের প্রতি হোম্যাজ চমৎকার লেগেছে। গল্পে যেমন টানটান উত্তেজনার সেই হিসেবে চিত্রন ম্যাচিওরড মনে হয় নি। ফাহাদ একজন ভার্সেটাইল রাইটার।

৭) ফুলং – লেখক : বাপ্পী খান, চিত্রন : ওয়াসিফ নূর ( ইলাস্ট্রেটেড গল্প )

উল্লেখিত দু’জন একসাথে কাজ করলে কোন গল্পের খারাপ হ‌ওয়াটা কঠিন হয়ে যাওয়ার কথা। এক বিলুপ্ত ধর্মের ধর্মগ্রন্থের আখ্যান এটি। ফুলং এক ভীতিকর রহস্যের গল্প।

৮) সহসা – লেখক : আবীর সোম, অঙ্কন : আবীর সোম ( কমিক্স )

ছোট্ট একটি কবিতা এবং কমিক্সের সমন্বয়ে চমৎকার কাজ করেছেন লেখক যিনি নিজেই আবার কমিক্স আর্টিস্ট। মনটা বিষন্ন করে দেয়ার মত প্রতিভা রাখেন তিনি।

৯) গভীর – লেখক : রাফাত সামস, চিত্রন : সাদী ইমদাদ ( ইলাস্ট্রেটেড গল্প )

অপরাধজগতের গভীরে যেতে কতটুকু নিজের গহীনে যেতে হয় সেই গল্প এটি। গল্প সুন্দর। চিত্রন দারুন।

১০) ছায়াগাছ, আলোফুল – হাসান মাহবুব, চিত্রন : মোহাইমিন তুর্জ ( ইলাস্ট্রেটেড গল্প )

হাসান মাহবুবের লেখা মানেই স্পেশাল কিছু। একধরণের ক্যাওটিক জার্নির মধ্য দিয়ে গল্প তিনি যেভাবে এক অন্ধকার থেকে আরেক অন্ধকারে নিয়ে যান তা আমাকে চমৎকৃত করে। এই গল্পের চিত্রন খুব সুন্দর হয়েছে। গল্পের সাথে একদম মানানস‌‌ই।

১১) এক মিস্টি খরগোশের পতন – লেখা ও আঁকা : সাদী ইমদাদ ( কমিক্স )

আমার আরেকটি খুব পছন্দের আখ্যান এটি। সাদী ইমদাদ একজন বহুমাত্রিক প্রতিভার অধিকারী ব্যক্তি। লেখালেখির উত্তেজনার সাথে এই সংকলনের সেরা অঙ্কনটা করেছেন এই গল্পে। চমৎকার কাজ করেছেন।

১২) একজন সাধারণ মানুষ – লেখক : পলাশ পুরকায়স্থ চিত্রন : রিয‌ওয়ানুজ্জামান ( ইলাস্ট্রেটেড গল্প )

একজন সাধারণ মানুষ পড়ে যান একডজন‌ পেশাদা্য খুনির বিপরীতে। মরিয়া অবস্থায় দেয়ালে পিঠ ঠেকে যাওয়া মানুষটির গল্প। লেখক ফাইট সিনে অনন্য গল্পকথন করেছেন। আমার আরেকটি ফেভারিট গল্প এটি। চিত্রন মোটামোটি।

১৩) বুলেট – লেখক : তন্ময়, অঙ্কন : মিশকাত ( কমিক্স )

গল্প বেশ টুইস্ট সমৃদ্ধ। সেইসাথে অঙ্কন হয়েছে ভালো।

১৪) লাল টিপ – লেখক : মিশু মিলন, চিত্রন : কাজী সাফায়েত হোসেন সাগর ( ইলাস্ট্রেটেড গল্প )

মিশু মিলন এক ব্রিলিয়ান্ট স্টোরি লিখেছেন। চিত্রন চমৎকার হয়েছে।

১৫) সুদু সুদু দরে এনেছে – লেখক : কাকতাল, শিল্পী : চন্দ্রিকা নূরানী ইরাবতী ( কমিক্স )

জাদু বাস্তবতার এক কবিতা যেন এটি। কনসেপ্ট ভালো।

১৬) রক্তের ডাক – লেখক : ডিউক জন, চিত্রন : সাদী ইমদাদ ( ইলাস্ট্রেটেড গল্প )

ওয়েস্টার্ন গল্প। খুব একটা ভালো লাগেনি। চিত্রন সুন্দর হয়েছে‌।

১৭ ) মিথ্যেবাদী রাখাল – লেখক : জাহিদ হোসেন, চিত্রন : ওয়াসিফ নূর ( ইলাস্ট্রেটেড গল্প )

দারুন কনসেপ্ট। মিথ্যাবাদী রাখাল, ঈশপ, কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা মিলিয়ে একটা ব্রিলিয়ান্ট গল্প লিখেছেন প্রিয় লেখক জাহিদ হোসেন। চিত্রন দারুন হয়েছে।

১৮) আমি জানতাম – লেখক : রাগিব নিহাল তন্ময়, শিল্পী : সাদী ইমদাদ ( কমিক্স )

টুইস্ট নির্ভর একটি গল্প। অঙ্কন দারুন হয়েছে। তবে ‘I knew it’ এর প্রতি যে নড দিয়েছেন লেখক সেটি উল্লেখ করাটা দরকার ছিল।

১৯) অ-হত্যা – লেখক : অধীরথ, চিত্রন : অনারিয়া আলিম্মন ( ইলাস্ট্রেটেড গল্প )

প্রথমটির মত শেষ গল্পটা ছায়ানগরের নামের সাথে মিলে গেছে। আখ্যান ভালো। চিত্রন ভালো।

ছায়ানগরের একটি ক্রিটিক হল কিছু কমিক্সে ফন্ট খানিকটা ছোট। পড়া যায় তবে আরেকটু বড় হ‌ওয়া দরকার ছিল। সম্পাদনায় ‘I knew it’ এর প্রতি নডটি উল্লেখ না করাটা আরেকটি দূর্বল অংশ। এছাড়া সবমিলিয়ে ভালো একটি সংকলন হয়েছে। ‘ছায়ানগর ২০২’ এর প্রতি শুভকামনা র‌ইল।

একধরণের অস্বস্তি এবং ভয় সৃষ্টি করেছে এই সংকলন। কমিক্সের নতুন রিডাররা এবং অল্পবয়সীরা মনে হয় এটি বেশি পছন্দ করবেন।

ছায়ানগরে কি ছায়া থাকে না থাকে না? নাকি ছায়াহীন মানুষ থাকে? নাকি থাকে শুধু ছায়ারা? একটি প্রায় জীবন্ত নগরে এই এই প্রশ্নের উত্তরে সাদা‌ বা কালো নয় খুঁজে নিতে হবে ধূসর অংশটিকে।

বুক রিভিউ

ছায়ানগর ১০১

প্রকাশকাল : জুলাই ২০২২

প্রকাশক : মাতব্বর কমিক্স এন্ড পাবলিকেশন

প্রচ্ছদ : চন্দ্রিকা নূরানী ইরাবতী

প্রচ্ছদ টাইপোগ্রাফি : সজল চৌধুরী

প্রুফ রিডিং : সালেহ আহমেদ মুবিন

সম্পাদক : রাগিব নিহাল তন্ময়
চন্দ্রিকা নূরানী ইরাবতী
ফাহাদ আল আবদুল্লাহ

জনরা : টু-শট সংকলন

রিভিউয়ার : ওয়াসিম হাসান মাহমুদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *