February 25, 2024

অবশেষে – এন,মুহাম্মদ হাবিব

 

বইয়ের পরিচিতি —
বইয়ের নাম:অবশেষে
লেখক:এন,মুহাম্মদ হাবিব
ধরন: কাব্যগ্রন্থ
রিভিউ দাতা: Afra Siddika

🍁কবিতা হচ্ছে ছন্দ, দোলা এবং স্পন্দন নিয়ে রচিত একগুচ্ছ শব্দমালা। অথবা, কবিতা বা পদ্য হচ্ছে শব্দের ছন্দোময় বিন্যাস; যা একজন কবির আবেগ, অনুভূতি, উপলব্ধি চিন্তাকে সংক্ষেপে এবং উপমা- সাহায্যে উদ্ভাসিত করে আর তা শব্দের ছন্দায়িত ব্যবহারে সুমধুর শ্রুতিযোগ্যতা যুক্ত করে।

কবিতা এর বিশালতা আর গভীরতা অকল্পনীয়। হ্যাঁ সত্যিকার অর্থেই অকল্পনীয়। জীবনের প্রত্যেকটি উপাদান আর উপাত্ত নিয়েই কবিতা। একটি জীবনের আলোকে সামগ্রিক জীবন নিয়ে লেখা হয় কবিতা। কবিতা হাসায়, কবিতা কাদায়। কবিতা আনন্দ দেয়, কবিতা বেদনা শেখায়। তাই একজন কবির কাছে তার কবিতা নিজের সন্তানের মতো, নিজের সহধর্মিণীর মতো যে তাকে ভালোবেসে পাশে থাকে দুঃখের সময়েও।কবিতা এমন একটা ব্যাপার যেটা আসলে পড়ে, অনুভব করে অন্যকে ভাষায় প্রকাশ করে বুঝানোর নয়। তবুও কিছু কথা জড়ো হয় যে কোন কাব্যগ্রন্থ পাঠ শেষেই। এই বইটি পাঠ শেষেও তেমন কিছু কথাই জড়ো হয়েছে। সবগুলো নিয়ে বিস্তারিত আলাপ আলোচনা করলে এই পর্যোলোচনা দীর্ঘ থেকে দীর্ঘতর হবে আর পাঠকের ধৈর্য্যচ্যুতি ঘটবে। তাই যেসব কবিতা ভাবনার খোরাক যোগাতে সক্ষম হয়েছে সেগুলো নিয়েই বরং আলোচনা করা যাক।

“অবশেষে ” কাব্যগ্রন্থটি কবি এন,মুহাম্মাদ হাবিবের এক অনবদ্য সৃষ্টি। কবিতায় যেনো এন,মুহাম্মাদ হাবিবের মনের কথা ফুটে উঠেছে।

বইটি মোট ২৭টি কবিতা রয়েছে। কবিতাগুলো মুলত ,প্রেমানুভুতি মোহ, মুগ্ধতা,বিস্ময়,বিদ্রোহ এবং আরও অনেক সুন্দর বিষয় নিয়ে লেখা। অসাধারণ সব শব্দের গাঁথুনিতে কবিতাগুলো একসারিতে এসে জমা হয়েছে এ গ্রন্থে। ভিন্ন ভিন্ন কবিতার প্রতিটিতেই আছে বৈচিত্র, ভিন্ন ভিন্ন দৃশ্যপট, প্রতিটি কবিতা স্বতন্ত্র।মন ছুঁয়ে যাওয়ার মতো এ কবিতাগুলো স্থান পেয়েছে এক মলাটে,এছাড়া বইটির প্রচ্ছদ, বাঁধাই, এবং কাগজ সত্যিই মনোমুগ্ধকর।কবিতাগুলো পড়লে কখনোই মনে হবে না এটি কবির প্রথম কাব্যগ্রন্থ।

সবচেয়ে বেশি ভালো লেগেছিলো যে ২টি কবিতা, সেটি হলো ১,”আকাঙ্ক্ষার আত্নকথন”
২,”উজানি বাও,”

ব্যাক্তিগত অভিমতঃ সবশেষে বলতে চাই অবশেষে বইটি আমার জীবনে পড়া ১ম কাব্য গ্রন্থ,, আর অসম্ভব ভালো লেগেছে বইটি পড়ে,

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *